Islam-beliefs

ইবলিস কোনো ফেরেশতা নয় সে হলো জীন

ইবলিস কোনো ফেরেশতা নয় সে হলো জীন

যখন আমি ফেরেশতাদেরকে বললামঃ আদমকে সেজদা কর, তখন সবাই সেজদা করল ইবলীস ব্যতীত। সে ছিল জিনদের একজন। সে তার পালনকর্তার আদেশ অমান্য করল। অতএব তোমরা কি আমার পরিবর্তে তাকে এবং তার বংশধরকে বন্ধুরূপে গ্রহণ করছ? অথচ তারা তোমাদের শত্রু। এটা জালেমদের জন্যে খুবই নিকৃষ্ট বদল।

সূরা: আল-কাহাফ আয়াত: ৫০

ইবলীস, আল্লাহ (সুবহানাহু ওয়া তা’আলার)  একজন অন্যতম আনুগত্য উপাসক ছিল, তাই তাকে এমন পর্যায় উত্থাপন করা হয়েছিল যে তিনি ফেরেশতাদের সাথে অবস্থান করে আল্লাহ (সুবহানাহু ওয়া তা’আলার) উপাসনা করতে পারতো। কিন্তু পরবর্তীতে যখন তাকে আদম (আঃ) কে সেজদা দিতে আদেশ করা হয় তখন সে আল্লাহ  (সুবহানাহু ওয়া তা’আলার) আদেশ পালনে অস্বীকার করে এবং শয়তান এ রূপান্তরিত করা হয়।

ইবলীস, জীন জাতির অন্তর্ভুক্ত (ফেরেশতাদদের না)

ফেরেশতারা নূরের তৈরি, জীন জাতি ধোঁয়াহীন অগ্নিশিখার এবং মানুষ জাতি মাটি থেকে তৈরি।

এবং জিনকে সৃষ্টি করেছেন অগ্নিশিখা থেকে।

সূরা:  আর-রাহমান আয়াত: ১৫

সে[ইবলীস] বললঃ আমি তার চেয়ে উত্তম আপনি আমাকে আগুনের দ্বারা সৃষ্টি করেছেন, আর তাকে সৃষ্টি করেছেন মাটির দ্বারা।

সূরা: সাদ আয়াত: ৭৬ এবং সূরা: আল-আ’রাফ আয়াত: ১২

জ্বীন জাতিকে মানবজাতির আগে তৈরি করা হয়েছিল

আমি মানবকে পচা কর্দম থেকে তৈরী বিশুস্ক ঠনঠনে মাটি দ্বারা সৃষ্টি করেছি। এবং জিনকে এর আগে লু এর আগুনের দ্বারা সৃজিত করেছি।

সূরা: আল-হিজর আয়াত: ২৬-২৭

ফেরেশতা আল্লাহর আদেশ অমান্য করতে পারে না বা অহংকার করতে পারে না

আল্লাহকে সেজদা করে যা কিছু নভোমন্ডলে আছে এবং যা কিছু ভুমন্ডলে আছে এবং ফেরেশতাগণ; তারা অহংকার করে না।

তারা তাদের উপর পরাক্রমশালী তাদের পালনকর্তাকে ভয় করে এবং তারা যা আদেশ পায়, তা করে

সূরা: আন-নাহাল আয়াত: ৪৯-৫০

Leave a Reply

Your email address will not be published.